ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়ে অচল মুম্বাই

Spread the love

অনলাইন ডেস্ক: ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়ে অচল হয়ে পড়েছে ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে পরিচিত মুম্বাই। স্থানীয় সময় সোমবার সকাল দশটা থেকে থেকে বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছেন মুম্বাইয়ের কয়েক মিলিয়ন মানুষ। বিদ্যুৎ না থাকায় প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে মেট্রো ট্রেন পরিষেবা। বিবিসি ও এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী মেইন গ্রিড থেকে সরবরাহ ব্যবস্থার সমস্যার কারণে অনাকাঙ্ক্ষিত মারাত্মক এ বিপর্যয় তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। প্রসঙ্গত, ভারতের বৃহৎ অংশে বেশিরভাগ সময় বিদ্যুৎ না থাকাটা স্বাভাবিক ঘটনা হলেও প্রধান শহরগুলোতে তা বিরল। বিশেষ করে মুম্বাইয়ের মতো শহরে।

শিগগিরই বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন কর্মকর্তারা। কিন্তু মারাত্মক এ বিদ্যুৎ বিপর্যয় নিয়ে সরব হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মানুষজন। তারা এটাকে বলছেন বিরল। কেননা তাদের অভিজ্ঞতা হলো মাত্র কয়েক মিনিটের বেশি বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় থাকার।

এনডিটিভি জানিয়েছে, একদিনের বেশি সময় ধরে মারাত্মক বিদ্যুৎ বিপর্যয় দেখা দিলেও দ্রুত তা সমাধান করার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হয়নি বলে কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন অনেকে। ট্রেন থেকে নেমে রেললাইন ধরে যাত্রীদের হেঁটে যাওয়ার ছবিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে।

গ্রিড বিপর্যয়ে সমস্ত ট্রেন পরিষেবা বাধাগ্রস্ত হলেও বিমানবন্দর ও পুঁজিবাজারের কার্যক্রম এখনও চলছে। তবে সবচেয়ে বড় উদ্বেগ হাসপাতাল নিয়ে। বিশেষ করে করোনা সংক্রমণ নিয়ে চিকিৎসাধীন রোগীদের ক্ষেত্রে।

যদি আরও বিপর্যয় আসে তাই হাসপাতালগুলোকে আরও অন্তত ৮ ঘণ্টা নিজস্ব ব্যবস্থায় জেনারেটরের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থার প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে বলেছে কর্তৃপক্ষ। বেশিরভাগ হাসপাতাল চলছে জেনারেটর দিয়ে।

শুধু ভারত নয় বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ একটি শহর হলো পশ্চিম ভারতের রাজ্য মহারাষ্ট্রের রাজধানী মুম্বাই। ভারতের করোনায় সবচেয়ে বিপর্যস্ত এই রাজ্যটি। এর মধ্যে বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের ঘটনায় উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

মহারাষ্ট্রের বিদ্যুৎ মন্ত্রী নিতিন রাউত বলেছেন, ‘যান্ত্রিক গোলযোগের জন্য ঠাণে ও মুম্বাইয়ের বিভিন্ন এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। আমাদের কর্মীরা কাজ করছে। আশা করি দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে।

তবে এটাই প্রথম মুম্বাইয়ে এমন বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের ঘটনা নয়। এর আগে ২০১২ সালে মেইন গ্রিডে সমস্যার কারণে গোটা ভারত বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল।